Do & Don’t after Receiving Amaryllis Bulbs

আসসালামু আলাইকুম। আশা করি সবাই আল্লাহর রহমতে ভাল আছেন। অনেকেই জানতে চেয়েছেন এমিরিলিস বালব কিভাবে লাগাবেন, যত্ন নেবেন….

আমি জানি এই গ্রুপে অনেক অভিজ্ঞ ও বড় লিলির বাগানি আছেন। আমি লিলি নিয়ে আমার গত কয়েক বছরের ক্ষুদ্র অভিজ্ঞতার আলোকে কিছু জিনিস শেয়ার করছি, আশা করি আপনারা উপকৃত হবেন:
 
১) বালব হাতে পেয়ে সাথে সাথে না লাগিয়ে নরম্যাল তাপমাত্রায় (ফ্যান ছেড়ে/ছায়াতে যেখানে বাতাসের প্রবাহ ভাল) ২-৩ ঘন্টা রেখে দিতে হবে। এরপর লাগালে ভাল।
 
২) অবশ্যই দোয়াশ মাটি ব্যবহার করবেন। যদি মাটি ১০০% ঝুরঝুরে দোয়াশ মাটি হয় তবে তার সাথে মোট পরিমাণের ২০-২৫% শুকনো-পচা গোবর সার ব্যবহার করবেন। এর বেশী ও বাইরে আর কোন সার ব্যবহার করার প্রয়োজন হয়না। তবে আপনার কাছে যদি মনে হয় মাটি অত ঝুরঝুরে না/হাল্কা আঠালোভাব আছে তাহলে মাটির সাথে ২০% লাল বালু (সিলেকশন বালু), ৫% কোকোপিট ও ২০% পারসেন্ট পচা গোবর ব্যবহার করতে পারেন। অর্থাৎ রেশিও হবে মাটি:লাল বালু:কোকোপিট:গোবর ৫৫:২০:৫:২০। আর যৎসামান্য ফুরাডন ব্যবহার করবেন মিশ্রণে।
 
৩) বালবটি মাটিতে লাগানোর ক্ষেত্রে এর ২/৩ ভাগ মাটির নিচে থাকলে ভাল। অনেকে বালবের অর্ধেক বা তারও বেশি অংশ মাটির উপরে রাখেন। আমি মাটির নিচে বেশি দিয়ে ভাল ফলাফল পেয়েছি। বালবটি লাগানোর পর বালবের চারদিক দিয়ে বৃত্তাকারে পানি দিয়ে দেবেন। প্রথমদিকে লাগানোর সময় একটু বেশি পানি দেবেন যাতে তা পাত্রের তলা পর্যন্ত যায়। ফাংগিসাইট মিশ্রিত পানি বালবের চারদিক দিয়ে দিলে ভাল ফলাফল পাওয়া যায়। আমি বায়োডারমা ব্যবহার করি। আর শুধু লাগানোর সময়ই না, সবসময়ই লিলি জাতীয় গাছের বালবের চারদিক দিয়ে পানি দিতে হবে। নচেৎ বালবের নেক দিয়ে কোনভাবে পানি ঢুকলে বালব পচে যেতে পারে।
 
৪) নতুন বালবের শেকড় প্রায় থাকেনা বললেই চলে। মাটিতে লাগানোর পর বালব থেকে ধীরে ধীরে নতুন শেকড় বের হয়। কিন্তু এই শেকড় বৃদ্ধির প্রক্রিয়া কম তাপমাত্রায় (২২-২৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস) খুব ভাল হয়। তাই বালব লাগানোর পর বিশেষত এপ্রিল থেকে অক্টোবর পর্যন্ত বালবটি এমন জায়গায় রাখতে হবে যাতে তা ভোর থেকে শুরু করে ১১ টা পর্যন্ত সরাসরি ৪ ঘন্টার মত রোদ পায়। এরপর রোদ না পেলেও সমস্যা নেই। যাদের এখানে ভোর থেকে পায়না তারা প্লিজ বালবটির পট এমন জায়গায় স্থাপন করবেন যাতে বেলা ১২ টা পর্যন্ত ঘুরেফিরে সরাসরি ৪ ঘন্টা রোদ পায়। ফার্স্ট হাফের রোদ নরম্যালি যেকোন গাছের জন্য আদর্শ। তাছাড়া কম তাপমাত্রায় ফুলের স্টিক ও ফুলের সাইজ বড় এবং কালার ভাল আসে যা কিনা উচ্চ রোদে/তাপমাত্রায় থাকলে আসবেনা।
 
৫) বর্ষাকালে টানা বৃষ্টির পানি বালবটির পচার কারন যেন না হয় সেই জন্য এপ্রিল থেকে অক্টোবর পর্যন্ত বালবটির পট এমন জায়গায় স্থাপন করুন যাতে বৃষ্টির পানি সরাসরি বালবের অথবা লিলি গাছের উপর না পড়ে। সেক্ষেত্রে বারান্দা, ছাদের ব্যালকনি, বড় গাছের ছায়া হতে পারে আদর্শ। যেহেতু বৃষ্টির পানি আল্লাহর নেয়ামত সে হিসেবে একে সংরক্ষণ করে পরে বালবের চারদিক দিয়ে ব্যবহার করতে পারেন।
 
৬) অনেকেই প্যাকেটজাত বিভিন্ন জৈব সার ব্যবহার করেন। আমি তার বিরোধি। কেঁচো সার ও গোবর সার ছাড়া আমি অন্য কোন সার লিলির গাছে ব্যবহার করার বিপক্ষে আমি।
 
৭) বালব লাগানোর প্রথম ৩৫-৪৫ দিন শেকড়ের বৃদ্ধি ত্বরান্বিত করতে মিডিয়া সবসময় হাল্কা ময়েশ্চার রাখতে হবে। মাটি পুরো শুকালে পানি দেয়া যাবেনা এই সময়ে। তাতে শেকড়ের বৃদ্ধি ব্যাহত হয়ে গাছের গ্রোথ কম হবে। আবার ময়েশ্চার রাখতে গিয়ে অতিরিক্ত পানি বা মাটি বেশি ভেজাও রাখা যাবেনা। তাহলে পচে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকবে।
 
উপরোক্ত আলোচনা আমি আমার কাস্টমারদের ফিডব্যাক, বাগানিদের সাথে সমস্যার আলোচনা এবং নিজের অভিজ্ঞতার আলোকে শেয়ার করলাম। কারো কাছে পরীক্ষিত ভাল পদ্ধতি থাকলে তা প্লিজ বিনা সংকোচে শেয়ার করবেন। জীবন অনেক ছোট কিন্তু কাজ করতে হবে অনেক। কাজেই আপনি আপনার অভিজ্ঞতালব্ধ জ্ঞান এই গ্রুপের মাধ্যমে সারা দেশেই ছড়িয়ে দেবেন এই কামনা।
গ্রুপ লিংকঃ www.facebook.com/groups/bulbplantsbd
 
ধন্যবাদ সবাইকে।
©মো: রাকিবুল হাসান

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Main Menu